রাজশাহীর তরুণীকে যৌনপল্লিতে বিক্রির পর যুবক গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: ৩:৩৭ অপরাহ্ণ, জুন ১৬, ২০২০, 527 জন দেখেছেন

রাজশাহী প্রতিনিধি:চাকরি দেয়ার নামে রাজশাহী থেকে এক তরুণীকে নিয়ে গিয়ে যৌনপল্লিতে বিক্রি করেছিলেন মো. আলিফ। এরপর পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করেছে। আলিফ রাজশাহী মহানগরীর গুড়িপাড়া গুলজারবাগ এলাকার তকবুল হোসেনের ছেলে।
মঙ্গলবার (১৬ জুন) ভোররাত সাড়ে ৩টার দিকে রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার উজানপাড়া এলাকা থেকে আলিফকে গ্রেপ্তার করা হয়। গোদাগাড়ী থানা পুলিশ এ অভিযান চালায়। জেলা পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) ইফতেখায়ের আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আলিফ বলেছেন, চাকরি দেয়ার নামে ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার কথা বলে রাজবাড়ির দৌলদিয়া যৌনপল্লিতে বিক্রি করা হয়েছিল ওই তরুণীকে। তাকে ২৫ হাজার টাকার বিনিময়ে যৌনপল্লিতে বিক্রি করা হয়েছিল বলেও আলিফ জানিয়েছেন।
ইফতেখায়ের আলম বলেন, গত ৯ জুন গোদাগাড়ীর ওই অসহায় তরুণীকে ঢাকায় তৈরি পোশাক কারখানায় চাকরি দেয়ার প্রলোভনে বাড়ি থেকে নিয়ে যান আলিফ। এরপর তাকেও দৌলদিয়া যৌনপল্লিতে বিক্রি করা হয়। পরে সোমবার (১৫ জুন) ওই তরুণী কৌশলে সেখান থেকে পালিয়ে আসেন।
এরপর ওই তরুণী নিজের পরিবারে বিষয়টি জানান। পরিবারের পক্ষ থেকে বিষয়টি গোদাগাড়ী থানায় জানানো হয়। পরে রাজশাহীর পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শহিদুল্লাহর দিকনির্দেশনায় গোদাগাড়ী থানা পুলিশের একটি দল আলিফকে গ্রেপ্তারে অভিযান শুরু করে। রাতে তাকে গ্রেপ্তারও করা হয়।
পুলিশ কর্মকর্তা ইফতেখায়ের আলম জানান, এ ঘটনায় গোদাগাড়ী থানায় মানবপাচার আইনে আলিফের বিরুদ্ধে একটি মামলা করা হয়েছে। দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারেও পাঠানো হয়েছে।
তিনি জানান, আলিফ জানিয়েছেন তিনি মানবপাচারকারী একটি চক্রের সঙ্গে জড়িত। এ চক্রের আরও তিনজনের নাম জানিয়েছেন তিনি। তাদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।