নওগাঁয় পানিতে তলিয়ে গেছে ফসল,চরম বিপাকে কৃষক

প্রকাশিত: ১০:৩৮ পূর্বাহ্ণ, মে ৩১, ২০২০, 1142 জন দেখেছেন

নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি –

পানিতে তলিয়ে গেছে  আত্রাই উপজেলার বেশ কয়েকটি ইউনিয়নের প্রায়  ৩০হেক্টর জমির ফসল ক্ষতি কমাতে বিভিন্ন উপায়ে ফসল সংরক্ষণ করছেন কৃষক।

নওগাঁর আত্রাই উপজেলায় ঘুর্ণিঝড়  আম্ফানের পরবর্তী  কয়েকদিনের টানা বৃষ্টি, দূর্যোগ পুর্ণ আবহাওয়া এবং হঠাৎ করে  নদীর উজান থেকে নেমে আসা পানিতে আত্রাই নদীতে অস্বাভাবিক পানি বৃদ্ধি হওয়ায় পানিতে তলিয়ে গেছে উপজেলার প্রায় ৩০ হেক্টর জমির ধান,ভুট্টা,বাদাম সহ অন্যান ফসল।

দুর্যোগ পূর্ন আবহাওয়া আর শ্রমিক সংকটের কারনে সঠিক সময়ে ফসল ঘরে তোলা সম্ভব হয়নি এই কৃষকদের। এমনিটি বলছেন অনেক কৃষক।হঠাৎ এমন দূর্যোগ পূর্ন আবহাওয়া কাল হয়ে দাঁড়াবে এই কৃষকদের কপালে এমন ধারণা ছিলনা করো।

তবে নিজেদের ক্ষতি কমিয়ে আনতে কৃষকরা, নৌকা, কলার গাছের তৈরি ভেলা,ধান সেদ্ধ  করা তাওয়া ব্যাবহার করা সহ,বিভিন্ন ভাবে চেষ্টা করছে, বেশ কয়েক দিন ধরে পানিতে  তলিয়ে থাকায়  শেকড় গজানো ধান,ভুট্টা,বাদাম, পানি থেকে তুলে পক্রিয়া জাত করতে। তবে পানিতে ডোবা জমি গুলোতে (জোঁকের) ব্যাপক উপস্থিতি থাকায়  তলিয়ে যাওয়া ফসল পাড়ে নিয়ে আসতে  বেগ পেতে হচ্ছে একটু বেশি।

বর্তমান এমন পরিস্থিতির জন্য  প্রকৃতি কে দায়ী করা হলে ও কৃষকরা  বলছেন দ্রুত পানি নিস্কাসন ব্যবস্থা না থাকায় ফসল পানিতে তলিয়ে যাচ্ছে, নদীতে রাবার ড্রাম দেবার কারণে পানি নিস্কাসনে বাধাগ্রস্ত  হয়। যার ফলশ্রুতিতে পানি দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে নদীর আশে পাশে খাল বিল গুলোতে।যার কারণে দ্রুত পানিতে তলিয়ে যায় ফসল।  ক্ষতিহয় নদীর তীর বর্তি আশে পাশের জমির চাষকৃত কৃষকের ফসল।  এমনিটি  মনে করেন সাধারন কৃষকরা।

এবিষয়ে আত্রাই উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কে এম কাউসার হোসেন  বলেন। হঠাৎ নদীতে পানি বেড়ে যাওয়া এবং দূর্যোগ পূর্ন আবহাওয়ার কারনে কৃষকদের এমন কষ্ট পোহাতে হচ্ছে।উপজেলার প্রায় ২৫থেকে ৩০হেক্টর জমির ফসল এই দূর্যোগের কবলে পড়েছেন,তবে এবারের যে লক্ষমাত্রা তা পুরণ হয়েছে বলে জানিয়েছ এই উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা।