রাজারহাটে মানবিক সহায়তা তালিকায় ইউপি সদস্যর নামে অনিয়মের অভিযোগ

প্রকাশিত: ৫:৫৯ অপরাহ্ণ, মে ১৮, ২০২০, 789 জন দেখেছেন

রাজারহাট (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলায় দরিদ্রদের পারিবারিক মানবিক সহায়তা কার্ডের তালিকায় স্থানীয় ইউপি সদস্যর নাম থাকায় অভিযোগ উঠেছে।

জানা যায়, কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাসের প্রভাবে কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষের জন্যে সরকার পারিবারিক মানবিক সহায়তা কার্ডের তালিকা করেছে, তবে অভিযোগ উঠেছে হতদরিদ্র, কর্মহীন ও গরিবের এই কার্ডেও ভাগ বসিয়েছেন কুড়িগ্রাম জেলার রাজারহাট উপজেলার বিদ্যানন্দ ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের নির্বাচিত ইউপি সদস্য মোঃ ফারুক হোসেন নিজের নামও দিয়েছেন মনবিক সহায়তা কার্ডের তালিকায় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এলাকার নাম পরিচয় জানাতে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি অভিযোগ করে বলেন,করোনার সংকটময় মুর্হুতে মেম্বার আমাদের কোন সাহায্য সহযোগিতা করছে না। সরকার আমাদের দিচ্ছে কিন্তু আমরা পাচ্ছি না। আমরা দিনমুজুর, দিন আনি দিন খাই, একদিন ভ্যনের চাকা না ঘুরলে আমাদের সংসারের চাকা ঘুরে না,কিছুদিন আগে আমাদের সুখদেব সেচ্ছাসেবি সংগঠন এর ত্রান নিয়ে সুখদেব এলাকায় কয়েকটি পরিবার এ বিতরণ করার সময়, হঠাৎ ইউপি সদস্যের দেখা|

তার সাথে কিছুক্ষন কথা বলার পড়ে আমরা সবাই বললাম ভাই আমাদের সুখদেব উত্তর পাড়ার দরিদ্র অসহায় মানুষ কি অপরাধ করছে! যে তাদের ত্রান বা বিভিন্ন সরকারী সহয়তা দেন না|

তিনি উত্তর এ বলে মুই কি ওমাক গুলাক উবি দিয়া আসিম।পড়ে আমরা একটা অসহায় দরিদ্র পরিবার এর কথা বললাম,ঐ অসহায় পরিবারটা তো আপনার কাছে কয়েকদিন ঘোরার পড়ে, তাকে আজ পর্যন্ত কিছু দেন নাই।

এক কথায় দুই কথায় অনেক কথা তুলে ধরলে পড়ে দুই পক্ষে রাগারাগি শুরু হয়, এমন সব কথা বললেন, কথা গুলো শুনে মনে হলো, ওনি ইউপি সদস্যের সেবক নয়,শোষক।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জোবায়ের হোসেন বলেন, মানবিক সহায়তা কার্ডের তালিকায় কোন অনিয়ম হলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।মনবিক সহায়তা কার্ডের ওই লিষ্টে যদি স্বজন প্রীতি বা নিজের নাম থাকে তা হলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলেও জানান তিনি।