ঈদে খুলছে না রাজশাহীর শপিংমল

প্রকাশিত: ৬:৩৩ অপরাহ্ণ, মে ৯, ২০২০, 509 জন দেখেছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক:: করোনাভাইরাস পরিস্থিতির মধ্যেও আজ থেকে সীমিত পরিসরে দোকানপাট খোলার কথা ছিলো। এজন্য প্রস্তুতিও নিচ্ছিলো রাজশাহীর ব্যবসায়ীরা। তবে, শেষ পর্যন্ত খুলছে না দোকানপাট। শনিবার নগর ভবনে নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে রাজশাহী শহরের সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় এমন মতই দিয়েছেন সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন ও সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা। জেলা শিল্প ও বণিক সমিতির নেতারাও এসময় উপস্থিত ছিলেন।

তারাও দোকানপাট-মার্কেট বন্ধ রাখার পক্ষে মত দেন। ব্যবসায়ী নেতাদের দাবি, মার্কেট বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন জেলা প্রশাসক। আর জেলা প্রশাসক বলছেন, আমাদের পক্ষ থেকে বন্ধের কোন নির্দেশ নেই, স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে গণমাধ্যমকে সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, আমাদের শহর এখনও করোনামুক্ত। কিন্তু ঝুঁকিমুক্ত নয়। শহরকে নিরাপদ রাখতে হলে আমাদের লকডাউন মেনেই চলতে হবে। সে জন্য দোকানপাট-মার্কেট বন্ধ রাখার কোনো বিকল্প নেই। ঈদের আগে মার্কেট খুলে দিলে আক্রান্ত এলাকা থেকেও অনেকে এ শহরে কেনাকাটা করতে আসবেন। তখন পরিস্থিতি সামাল দেয়া কঠিন হয়ে পড়বে। তাই আমরা দোকানপাট-মার্কেট বন্ধ রাখার পক্ষে। আমাদের সঙ্গে ব্যবসায়ী নেতারাও একমত। আমাদের মতামত জেলা প্রশাসক হামিদুল হককে জানানো হয়েছে।

রাজশাহী শিল্প ও বণিক সমিতির সহ সভাপতি মাসুদুর রহমান রিংকু বলেন, দেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে আমরা দোকানপাট-মার্কেট খোলার বিষয়ে গতকাল নগর ভবনে বসেছিলাম। সেখানে জেলা প্রশাসকের ঘোষনার প্রেক্ষিতে আমরা দোকান বন্ধ রাখছি। প্রশাসনের পক্ষ থেকে যে নির্দেশনা এসছে আমার মেনে নিয়েছি।

রাজশাহীর জেলা প্রশাসক হামিদুল হক বলেন, দোকানপাট-মার্কেট বন্ধ রাখতে কোন ঘোষণা দেওয়া হয় নি। যদি কোন মার্কেট পরিচালনা কর্তৃপক্ষ ও ব্যবসায়ী সমিতি বন্ধ রাখতে চায় তাহলে আমরা তাদের জোর করে খোলাবো না। তারা খুলতে চাইলে দোকানপাট-মার্কেটে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। এটি মনিটরিং করা হবে