বিয়ানীবাজারে আহমদুর রহমান খাঁন হিনু’র খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

প্রকাশিত: ৬:১৮ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ২৪, ২০২০, 738 জন দেখেছেন

নিজস্ব সংবাদদাতা :: মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য, একটু সহানুভূতি কি মানুষ পেতে পারে না ও বন্ধু…….. বৈশ্বিক মহামারি (কোভিড-১৯) মোকাবেলায় বিয়ানীবাজার উপজেলার আলীনগর ইউনিয়নের গৃহবন্ধী কর্মহীন অসহায় ৪০০টি পরিবারের পাশে দাড়ালেন মানব কল্যাণ সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান আহমদুর রহমান খাঁন হিনু।

সেই কালজয়ী গানই মনে হচ্ছিল মানুষের প্রতি মানুষের হৃদয়টাকে স্ফিত করে মানবিকতাকে জাগিয়ে তুলতেই যেন গানটি গেয়েছিলেন কিংবদন্তী সংঙ্গীতশিল্পী। আসলেই বাস্তবে মানুষ মানুষের জন্যে, আজও মানুষের হৃদয়ে নাড়া দেয়। আজও মানুষকে ভাবায়, মানুষের চেতনাকে শাণিত করে জাগিয়ে তোলে।

সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে আহমদুর রহমান খাঁন হিনু নিজ উদ্যোগে বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে ও করোনা ভাইরাস মহামারীর প্রভাবে আলীনগর ইউনিয়নের কর্মহীন হয়ে পড়া অসহায় ৪০০টি পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন। খাদ্য সামগ্রীর মধ্যে ছিলো ২৫ কেজি চাল, ডাল, তেল, আলু, পিয়াজ।

খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কালে উপস্থিত ছিলেন ইউকে কমিউনিটি নেতা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আতিকুর রহমান খান, সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ সভাপতি আহবাবুর রহমান খান, ইউপি সদস্য মাওলানা জুবের আহমদ, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ছালেহ আহমদ, সমাজসেবক খালেদ আহমদ খান, মানব কল্যাণ সংস্থার সহকারী সেক্রেটারী আব্দুল আহাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুল ইসলাম, খাদ্য বিষয়ক সম্পাদক ইমন খান, পারভেজ খান, মাহবুব খান, শেখ ফখরুল ইসলাম।

এছাড়া আহমদুর রহমান খাঁন হিনু প্রতিনিয়ত মানব কল্যাণ সংস্থার মাধ্যমে শীত মৌসুমে শীতবস্ত্র বিতরণ, খৎনা ক্যাম্প, বৃক্ষরোপনসহ এলাকার দরিদ্র ছেলে-মেয়েদের বিবাহের জন্য তিনি তার দানশীলতার হাত বাড়িয়ে দেন এই সমাজ সেবক।

শিক্ষাবিস্তারের জন্য তিনি প্রতি বছর মানব কল্যান সংস্থার পৃষ্টপোষকতায় আহমদুর রহমান খাঁন হিনু মেধাবৃত্তি পরিক্ষা নেন। পাশাপাশি আলী নগর ইউনিয়নে অবস্থিত কওমী মাদ্রসার শিক্ষার্থীদেরকে নিয়ে কেরাত প্রতিযোগিতা, গরীব মেধাবী শিক্ষার্থীদেরকে সম্মাননা প্রদান, শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ, ইফতার সামগ্রী বিতরণ সহ
বিভিন্ন মসজিদ-মাদ্রাসা নির্মানেও সাধ্যমতো সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন তিনি।

এদিকে আহমদুর রহমান খাঁন হিনু বলেন, কোভিড ১৯ মোকাবেলায় আমরা মানুষ হয়ে কি অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াবো না। ওদের কষ্টের সময় সহানুভূতির হাত বাড়াবো না। তাহলে আর আমরা কিসের মানুষ। মানবিক গুণাবলিই যদি না থাকে তাহলে কিসের আমরা। মানবিকতাই তো মানুষের আসল পরিচয়। তাই নিজেকে মানব সেবায় নিয়োজিত রেখেছি। মানুষের জন্য কিছু করতে পারলে মনে শান্তি পাই। তাই সারা জীবন অসহায় মানুষের পাশে থাকতে চাই।