গোলাপগঞ্জে গাছ কাটতে বাধা, পিতাকে কুপিয়ে হত্যা করলো ছেলে

প্রকাশিত: ৮:২৩ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ২৭, ২০২০, 1160 জন দেখেছেন

গোলাপগঞ্জ (সিলেট) প্রতিনিধিঃ সিলেটের গোলাপগঞ্জের ঢাকাদক্ষিণ ইউনিয়নের সুনামপুর গ্রামে দা ও কুড়াল দিয়ে পিতাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে ছেলে। শুক্রবার (২৭মার্চ) সকালে উপজেলার ঢাকাদক্ষিণ ইউনিয়নের সুনামপুর গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে।

এসময় ছেলের দায়ের কুপে তার মা মিনারা বেগম গুরুতর আহত হয়েছেন। স্থানীয়রা তাৎক্ষণিক তাকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করেছেন।

স্থানীয়রা জানান, সুনামপুর গ্রামের আবদুল করিম খান (৬০) এর ছেলে রাহেল আহমদ (৩৫) বাড়ির সামনের গাছ কাটতে গেলে তার পিতা করিম খান ও তার মাতা মিনারা বেগম (৪৫) বাধা দেন।

এসময় ছেলে তাদের বাধা না মেনে গাছ কাটতে থাকে। বাধা দেওয়ার পরও গাছ কাটতে গেলে তাদের মধ্যে ঝগড়া শুরু হয়। ঝগড়ার এক পর্যায়ে ছেলে রাহেল উত্তেজিত হয়ে পিতা ও মাতার উপর আক্রমণ চালায়। হাতে থাকা দা ও কুড়াল দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপাতে থাকে।

স্থানীয়রা তাদের চিৎকার শুনে এগিয়ে আসলে ছেলে রাহেল আহমদ পালিয়ে যায়। এসময় ঘটনাস্থলেই করিম খান মৃত্যুবরণ করেন।

স্থানীয়রা এসে মাতা মিনারা বেগমকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। খবর পেয়ে গোলাপগঞ্জ মডেল থানা পুলিশের ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ওসমানী হাসপাতালে ময়না তদন্তের জন্য প্রেরণ করেন।

গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মিজানুর রহমান জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করেছি। খুনি রাহেলকে আটকের চেষ্টা চলছে।