এসএসসি ও দাখিল পরীক্ষার্থীদের তানোর উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা জানালেন চেয়ারম্যান লুৎফর হায়দার ময়না রশিদ

প্রকাশিত: ৫:৩৭ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২০, 409 জন দেখেছেন

সুজন রাজশাহী প্রতিনিধি:

গতকাল থেকে সারা দেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে এসএসসি ও দাখিল পরীক্ষা।

সকল এস এসসি ও দাখিল পরীক্ষার্থীদের রাজশাহীর তানোর উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে সংগ্ৰামী যুবলীগ সভাপতি ও চেয়ারম্যান মোঃ লুৎফর হায়দার ময়না রশিদ পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রিয় শিক্ষার্থীগণ, উচ্চ শিক্ষা গ্রহণের জন্য অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ ধাপ হলো এই পাবলিক পরীক্ষাটি।

এই পরীক্ষার ফলাফলের উপর উচ্চ শিক্ষা গ্রহণের অনেক কিছু নির্ভর করে। আর তাই এই পরীক্ষায় ভাল ফলাফলের জন্য প্রয়োজন ভাল প্রস্তুতি। আজ পরীক্ষার পূর্ব প্রস্তুতি নিয়ে তোমাদের উদ্দেশ্যে কিছু আলোচনা করব। একজন পরীক্ষার্থীকে ভাল ফলাফলের জন্য মানসিক ভাবে প্রস্তুতি নেয়াটা খুবই জরুরী। সে যদি মানসিক ভাবে পিছিয়ে থাকে তাহলে ফলাফলে তার প্রভাব পড়বেই। আর সেজন্যই তাকে মানসিক ভাবে খুবই আত্নবিশ্বাসী হতে হবে। নিজের উপর দৃঢ় বিশ্বাস রাখতে হবে যে আমি ভাল ফলাফল করবই। ঠিক একইভাবে একজন পরীক্ষার্থীকে শারীরিক ভাবে সম্পূর্ণ সুস্থ্য থাকতে হবে।

সারা বছর কঠোর পরিশ্রম করে পরীক্ষার প্রস্তুতি নিয়ে পরীক্ষার দিন অসুস্থ্য হয়ে পড়লে সকল চেষ্টাই বৃথা যাবে। তাই পরীক্ষা সামনে রেখে পড়াশুনার পাশাপাশি যথেষ্ট বিশ্রাম নিতে হবে। পরীক্ষার্থীদের মনে রাখতে হবে যে সম্পূর্ণ সুস্থ্য হয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করাও পরীক্ষার একটি অংশ।

পরীক্ষার্থীদের জন্য আরেকটি বিষয় অত্যন্ত জরুরী সেটি হলো তার নিজের প্রস্তুতির উপর সম্পূর্ণ বিশ্বাস রাখা এবং পরীক্ষার দিন নতুন করে কিছু না শিখে পূর্বে যা শিখা হয়েছে সেগুলো বারবার রিভিশন দেয়া। পাশাপাশি কোন প্রকার গুজবে বিশ্বাস না করা। পরীক্ষার প্রবেশপত্র ও রেজিঃ কার্ড পাওয়ার পর এগুলোর দুই সেট ফটোকপি নিরাপদ স্থানে সংরক্ষণ করতে হবে। পরীক্ষার আগের দিন প্রবেশপত্র ও রেজিঃ কার্ডের মূলকপি সাদা, স্পষ্ট ব্যাগে সংরক্ষণ করতে হবে এবং পরীক্ষার যাবতীয় উপকরন যেমন কলম, রাবার, খাতা মার্জিন দেওয়ার জন্য স্কেল এবং সময় দেখার জন্য হাতঘড়ি সাথে রাখতে হবে।

পাশাপাশি আবহাওয়ার দিকটা বিবেচনা করে মোমবাতি ও দিয়াশালাই কিংবা চার্জার লাইট সাথে রাখা যেতে পারে। পরীক্ষার দিন পরীক্ষার্থীকে পরীক্ষা শুরুর এক ঘন্টা পূর্বে পরীক্ষা কেন্দ্রে পৌছাতে হবে।এরপর পরীক্ষার্থীকে দেহ তল্লাশি শেষে পরীক্ষা হলে নিজ আসন গ্রহণ করতে হবে। পরীক্ষার উত্তরপত্র পাওয়ার পর খুব সাবধানতার সাথে রোল নাম্বার, রেজিঃ নাম্বার, বিষয় কোড ও সেট কোড কালো বলপয়েন্ট কলম দ্বারা ভরাট করতে হবে।বৃত্ত ভরাটে কোনো ভূল হলে সাথে সাথে কক্ষ পরিদর্শক কে বিষয়টি অবগত করতে হবে।

পরিশেষে তোমাদের সবার জন্য শুভ কামনা রইলো। তোমরা সুস্থ থেকে পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে ভাল ফলাফল নিয়ে আসো এই দোয়া করছি।