ঢাবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু : শরীরে কালো দাগ নিয়ে যা বললেন স্বামী

প্রকাশিত: ৫:২৭ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৬, ২০২১, 347 জন দেখেছেন

লাল সবুজ৭১ ডেস্ক :  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) নৃত্যকলা বিভাগের ২০১৫-১৬ সেশনের শিক্ষার্থী ইলমা চৌধুরী মেঘলার (২৪) মৃত্যুর ঘটনায় তার বাবা সাইফুল ইসলাম চৌধুরী মামলা করেছে।

মামলার এজাহারে বলা হয়, নির্মমভাবে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে তাকে।

এ ঘটনায় মঙ্গলবারই আটক করা হয় ইলমার স্বামী ইফতেখার আবেদীনকে। আটকের পরপরই তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদে তিনি দাবি করেন, ‘ইলমা আবেগী ছিল, সে আত্মহত্যা করেছে।’

পুলিশের গুলশান বিভাগের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে বলেন, ইলমাকে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি করছে তার পরিবার। এরপর রাতে আবারও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় ইফতেখারকে।

পুলিশ জানায়, ইলমার শরীরের দাগ নিয়ে স্বামীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি বলেন, গেল সোমবার রাতে আমাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হলে একটু ধস্তাধস্তি হয়। ধস্তাধস্তিতে সে ব্যথা পেতে পারে। এটি তেমন কোনো বিষয় নয়। তাই শরীরে কালো দাগ হয়েছে।

বনানী থানার ওসি নুরে আজম মিয়া গণমাধ্যমকে বলেন, ইলমার বাবা হত্যা মামলা করেন। মামলা হওয়ার আগে থেকেই আমরা আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদ করছি। তাকে আরও জিজ্ঞাসাবাদ করা প্রয়োজন মনে করে তাকে আদালতে পাঠিয়ে রিমান্ড আবেদন করেছি।

তিনি জানান, ইলমার বনানীর বাসা থেকে সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে। আলামত সংগ্রহ করেছে ফরেনসিক টিম। হত্যা নাকি আত্মহত্যা সে বিষয়টি পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর পরিষ্কার হবে।