ধর্ষণ মামলা ধাপাচাপার চেষ্টা চালাচ্ছেন রোনালদো

প্রকাশিত: ৬:০৭ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ৯, ২০২১, 262 জন দেখেছেন

স্পোর্টস ডেস্ক : ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর বিরুদ্ধে আনা লাস ভেগাস ধর্ষণ মামলা সম্পর্কিত ২০০ নথিপত্র প্রকাশ্যে আনতে চাচ্ছে নিউ ইয়র্ক টাইমস। আর যুক্তরাষ্ট্রের এই সংবাদমাধ্যম যেন জনসম্মুখে আনতে না পারে সেজন্য জোর চেষ্টা চালাচ্ছেন রোনালদো। লাস ভেগাস পুলিশের কাছে থাকা এই মামলার নথিপত্র দেখার অনুমতি চেয়েছে নিউইয়র্ক টাইমস। কিন্তু রোনালদো এমনটা হতে দিতে চান না বলে সাময়িকীটির বিরুদ্ধে মামলা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

২০১৭ সালে জার্মান সাময়িকী ডার স্পিগেলের প্রতিবেদনের পর রোনালদোর ধর্ষণের বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে। ২০০৯ সালে লাস ভেগাসে ক্যাথরিন মায়োরগাকে ধর্ষণ করা ও ঘটনাটি অর্থ দিয়ে দমিয়ে রাখার অভিযোগ ওঠে এই সুপারস্টার ফুটবলারের বিরুদ্ধে। কিন্তু পরবর্তীতে আদালতের রায় আসে রোনালদোর পক্ষেই। এবার এই বিষয়ে ইংলিশ সংবাদমাধ্যম দ্য অ্যাথলেটিকের অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে উঠে আসে এই মামলার নতুন খবর। তারা জানায়, এই ধর্ষণ মামলা সম্পর্কিত ২০০ নথিপত্র দেখার জন্য লাস ভেগাস পুলিশের অনুমতি চেয়েছে নিউইয়র্ক টাইমস। কিন্তু রোনালদো তা হতে দিতে চাইছেন না। ফলে রোনালদোর ক্যাথরিন ধর্ষণ মামলা আবারো সকলের আলোচনায়।

রোনালদোর বিরুদ্ধে অভিযোগ হচ্ছে, ২০০৯ সালে যখন ম্যানইউ থেকে রিয়াল মাদ্রিদে যাওয়া প্রায় নিশ্চিত এই পর্তুগীজ সুপারস্টারের, তখন লাস ভেগাসে এক হোটেলে ক্যাথরিন মায়োরগা নামের এক মডেলকে ধর্ষণ করেছিলেন তিনি। তবে রোনালদো বরাবরই ধর্ষণের অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন। তবে ডার স্পিগেল জানায়, সে সময় ধর্ষণের অভিযোগ ধামাচাপা দিতে মায়োরগাকে অনেকটা গোপনেই ৩ লাখ ৭৫ হাজার ডলার দিয়েছিলেন রোনালদো, যাতে মায়োরগা এ নিয়ে মামলা না করেন।