ঠাকুরগাঁওয়ে রাজাকার পুত্রকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন

প্রকাশিত: ৫:৫৬ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১, ২০২১, 301 জন দেখেছেন

লাল সবুজ৭১ ডেস্ক : ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার বড়পলাশবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে অভিযুক্ত রাজাকারপুত্র ও গত নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মোহাম্মদ শাহাবুদ্দিন নৌকা প্রতীক পেয়েছেন। এতে এলাকায় তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতাকারী শান্তি কমিটি, রাজাকার-আলবদর ও আলশামসদের তালিকায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী শাহাবুদ্দিনের বাবা আব্দুল হালিমের নাম রয়েছে। এ বিষয়ে আব্দুল হালিমের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালে মামলা রয়েছে। এ নিয়ে ২০১৮ সালের জুলাই তার বিরুদ্ধে তদন্ত হয়। তদন্তকালে ওই উপজেলার বড়পলাশবাড়ি ইউনিয়নের মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডার আব্দুল হামিদসহ বেশ কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধা তার বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দেন।

শাহাবুদ্দিন গত ইউপি নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে অংশ নিলেও এবার তৃণমূল থেকে পাঠানো তালিকায় তার পক্ষে সাফাই গেয়েছেন জেলা ও উপজেলা কমিটির নেতারা। পরে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ড তাকেই মনোনয়ন দেয়।

স্থানীয়রা জানান, শাহাবুদ্দিনের বড় ভাই জামায়াতে ইসলামী করেন। ছোট ভাই ওই ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি। শাহাবুদ্দিনের পুরো পরিবার জামায়াত-বিএনপি রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। এসব কিছু আড়াল করে তাকে নৌকার প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পাইয়ে দিতে সহায়তা করা হয়েছে।

শাহাবুদ্দিনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি প্রসঙ্গটি এড়িয়ে যান। বর্তমান চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম বলেন, কেন্দ্রে ভুল তথ্য পাঠিয়ে তাকে দলীয় মনোনয়ন থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে। এ বিষয়ে তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য দলের কেন্দ্রীয় দপ্তরে আবেদন করা হয়েছে।

বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত বলেন, বর্তমানে দলের দায়িত্বশীল নেতাদেরই ইউপি নির্বাচনে মনোনয়নের সুপারিশ করে কেন্দ্রে তালিকা পাঠানো হয়েছে।

ঠাকুরগাঁও জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি সাদেক কুরাইশী বলেন, বিষয়টি তার জানা নেই। তবে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে কেন্দ্রে শাহাবুদ্দিনের দলীয় মনোনয়ন বাতিলের আবেদন করা হবে।