সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে নানা বাড়িতে বেড়াতে এসে লাশ হলো সুমাইয়া

প্রকাশিত: ৯:০৬ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৮, ২০২১, 223 জন দেখেছেন

লাল সবুজ৭১ ডেস্ক: সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার টুক দিরাই গ্রামে নানার বাড়ি বেড়াতে এসে পানিতে ডুবে সুমাইয়া আক্তার (৯) নামে এক শিশু নিখোঁজের ২৪ ঘণ্টা পর তার ভাসমান লাশ উদ্ধার হয়েছে। শুক্রবার (৮ অক্টোবর) সকাল ৮ টার দিকে চামটি খালে ভাসমান লাশ দেখতে গ্রামের লোকজন।

স্থানীয় ওয়ার্ড ইউপি সদস্য ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে ভাসমান লাশটি উদ্ধারের পর আমরা এটি সুমাইয়ার লাশ হিসেবে শনাক্ত করতে পারি এবং গ্রামবাসী সবার সম্মতিতে লাশ দাফনের ব্যবস্থা করা হয়। জানা গেছ শিশু সুমাইয়া সিলেটের টুকের বাজারস্থ জাহাঙ্গীরের মেয়ে।

উল্লেখ্য, সুমাইয়া আক্তার চাচা-চাচীর সাথে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে টুক দিরাই গ্রামের ইমান আলীর বাড়িতে বেড়াতে আসছিলো। বৃহস্পতিবার বেলা ২ টার দিকে সমবয়সী ৩/৪ জন মেয়ের সাথে কালনী পার্শ্ববর্তী চামটি খালে গোসল করতে যায়। সবার সাথে সুমাইয়া আক্তার খালের পানিতে ডুব দিলে সে আর উঠেনি। সহপাঠীরা বাড়িতে গিয়ে বিষয়টি জানালে তৎক্ষণাৎ গ্রামের লোকজন জাল-দড়ির সাহায্যে অনেক খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেওয়া হয়। খবর পেয়ে দিরাই ফায়ার সার্ভিসের একটি ডুবির দল তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে এসে সন্ধ্যা পর্যন্ত উদ্ধার অভিযান চালিয়ে লাশ উদ্ধারে সক্ষম না হয়ে অভিযান স্থগিত করে চলে যান।