রাজশাহীর দুটি পৌরসভায় আ’লীগ ও ১টিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী বিজয়ী

প্রকাশিত: ৪:৩২ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৮, ২০২১, 433 জন দেখেছেন

সুজন রাজশাহী প্রতিনিধি:

রাজশাহীর তিনটি পৌরসভার মধ্যে দুটি পৌরসভায় আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী নৌকা প্রতীক নিয়ে বিজয়ী এবং ১ টিতে আ’লীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থী মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। ৩ টি পৌরসভার মধ্যে দুটিতে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন বিএনপি মনোনীত ধানের শীষের প্রার্থীরা। বিজয়ী ৩ জন হলেন, রাজশাহীর কাকনহাটে নৌকা প্রতীক নিয়ে একেএম আতাউর রহমান, বাগমারার ভবানিগঞ্জে আব্দুল মালেক মণ্ডল ও বাঘার আড়ানিতে আ’লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী (নারিকেল গাছ) প্রতীক নিয়ে মুক্তার আলী।

আড়ানি:
আড়ানী পৌরসভায় অনুষ্ঠিত নির্বাচনে মেয়র পদে আ’লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী মোঃ শহীদুজ্জামান ১৬০৪ ভোটে পরাজিত হয়েছেন দলটির বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী মুক্তার আলীর কাছে। তিনি পেয়েছেন ৫,৯০২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী শহীদুজ্জামান পেয়েছেন ৪,৩০০ ভোট। বিএনপির প্রার্থী তোজাম্মেল হক ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ১২৭৬ ভোট। রির্টানিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাহী শাহিন রেজা শনিবার রাত ৭টায় বেসরকারিভাবে এ ফলাফল ঘোষণা করেন।

ভবানিগঞ্জ :
রাজশাহীর বাগমারার ভবানীগঞ্জ পৌরসভায় আ’লীগের প্রার্থী আবদুল মালেক মণ্ডল বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। শনিবার সন্ধ্যায় বেসরকারিভাবে প্রাপ্ত ফলাফলে তিনি প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর চেয়ে ৪ হাজার ৭০০ ভোট বেশি পেয়ে মেয়র নির্বাচিত হন। তিনি নৌকা মার্কায় মোট পেয়েছেন ৭ হাজার ৩৯৯ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী এসএম মামুনুর রশিদ জগ প্রতীকে পেয়েছেন দুই হাজার ৬৯৯ ভোট। বিএনপির প্রার্থী আব্দুর রাজ্জাক পেয়েছেন ৮৯৬ ভোট। তবে ভোটদানে বাধা প্রদান, পোলিং এজেন্টদের বের করে দেওয়ার অভিযোগে সকালে বিএনপি প্রার্থী ভোট বর্জন করেছেন।
কাকনহাট :
গোদাগাড়ীর কাকনহাট পৌরসভা নির্বাচনে আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী একেএম আতাউর রহমান ৫৮৮২ ভোট পেয়েছে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির মনোনীত প্রার্থী হাফিজুর রহমান হাফিজ পেয়েছেন ৫১১৩ ভোট।