মোংলা বন্দরে ৩ চোরাকারবারি আটক চোরাই ডিজেল জব্দ।

প্রকাশিত: ২:৪৭ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৬, ২০২০, 440 জন দেখেছেন

মোঃ মিজানুর রহমান,মোংলা (বাগেরহাট)

দেড় হাজার লিটার চোরাই ডিজেল ও একটি ইঞ্জিনচালিত ট্রলারসহ ৩ চোরাকারবারিকে আটক করেছে কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের একটি অপারেশন দল।সোমবার গভীর রাতে মোংলা বন্দরের হারবারিয়া চ্যানেলের পশুর নদীতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে চোরাই ডিজেলসহ তাদের আটক করা হয়।মোংলা কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের গোয়েন্দা কর্মকর্তা এম ফয়সাল হক জানান,মোংলা বন্দরে অবস্থানরত বিদেশী বাণিজ্যিক জাহাজ থেকে কয়েকটি চোরাচালানিচক্র প্রতিনিয়ত ডিজেল,ইলেকট্রিক পণ্য, অন্যান্য যন্ত্রাংশ পাচার করে আসছিল। গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে সংঘবদ্ধ চোরাকারবারিদের বিরুদ্ধে কোস্টগার্ডের পক্ষ থেকে জিরো ট্রলারেন্স নীতি গ্রহণ করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় সোমবার গভীর রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে ইঞ্জিনচালিত ট্রলারে নদী পথে পাচার করে অানার সময় জয়মনির কাছে ১৫৫০ লিটার চোরাই ডিজেলসহ ৩ পাচারকারীকে আটক করা হয়।আটককৃতরা হলেন- মোংলার চাঁদপাই ইউনিয়নের কানাইনগর গ্রামের ফারুক খানের পুত্র মোঃ হাবিব খান (৪৫), আব্দুর রউফ হাওলাদের পুত্র আবুল শেখ (৪৮) এবং একই এলাকার নুর মোহাম্মদের ছেলে মোঃ সুমন (১৮)। জব্দকৃত মালামাল মোংলা থানায় স্থানান্তর করেছে কোস্টগার্ড। আটককৃতদের বিরুদ্ধে মোংলা থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা হওয়ার পর তাদের জেল হাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ।বাংলাদেশ কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের গোয়েন্দা কর্মকর্তা এম ফয়সাল হক জানান, কোস্টগার্ডের এখতিয়ারভূক্ত এলাকাসমূহে আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণ, মৎস্য সম্পদ রক্ষা, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি চোরাচালানেও কোস্ট গার্ড জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে আসছে এবং ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে।