কুড়িগ্রামের রাজারহাটের বিদ্যানন্দ নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়টি বিদ্যানন্দে পুনঃস্থাপনের দাবী

প্রকাশিত: ৬:৫৩ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৬, ২০২০, 579 জন দেখেছেন

মোস্তফা রাজারহাট (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি:

রবিবার (০৬ সেপ্টেম্বর) কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলাধীন বিদ্যানন্দ ইউনিয়নের বিদ্যানন্দ নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়টি বিদ্যানন্দে পুনঃস্থাপেনের দাবী জানান স্থানীয়রা। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রাজারহাট উপজেলাধীন বিদ্যানন্দ ইউনিয়নের তৈয়ব খাঁ মৌজার দুই-তৃতীয়াংশ সহ বিদ্যানন্দ নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়টি তিস্তা নদীতে ভেঙ্গে যায়। ফলে জেলা প্রশাসক মহোদয় বিগত ১৭/০৬/২০১৭ ইং তারিখে নদী ভাঙ্গন এলাকা পরিদর্শন করেন এবং উক্ত বিদ্যালয়ের অনুকূলে- ত্রিশ হাজার টাকা ও দশ বান্ডিল ঢেউটিন প্রদান করেন। জেলা প্রশাসকের পরামর্শ মোতাবেক ২০/০৬/২০১৭ইং তারিখে তৈয়ব খাঁ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠের পূর্ব দিকে সাময়িক শ্রেণি পাঠদানের জন্য টিনের ছায়লা নির্মাণ করা হয়। নির্মানাধীন শ্রেণি কক্ষে সকল শিক্ষার্থী উপস্থিত থাকলেও অদ্যাবধি কোন শিক্ষক ক্লাসে আসেন নাই। পরবর্তীতে জানতে পারা যায় যে, প্রধান শিক্ষক ও অন্যান্য শিক্ষকগনের যোগসাজশে শিক্ষার্থী,অভিভাবক ও এলাকাবাসীকে উপেক্ষা করে অতি গোপনে উক্ত অনুদান উত্তোলন করেন এবং বিদ্যালয়টি তৈয়ব খাঁ থেকে ০৫ (পাঁচ) কিলোমিটার দূরে পার্শ্ববর্তী নাজিমখাঁন ইউনিয়নের তালতলা নামক স্থানে স্থাপন করা হয়। এর ফলে তৈয়ব খাঁ এবং চর বিদ্যানন্দের কয়েক শত শিক্ষার্থী মাধ্যমিক শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। বিগত বছর গুলোতে এলাকার কোমলমতি শিক্ষার্থী ঝড়ে পড়া সহ বেড়েছে বাল্য বিবাহের প্রবণতা। এ ব্যাপারে ততকালীন জেলা-উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সাথে যোগাযোগ করা হলেও বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ওনাদের ম্যানেজ করায় সুফল পাওয়া যায়নি। এমতাবস্থায় অত্র এলাকার গরীব দুঃখী শিক্ষার্থীদের ন্যুনতম শিক্ষা অর্জনের বিদ্যাপীঠটি অন্যত্র চলে যাওয়ায় এলাকাবাসীর মধ্যে চরম হতাশা ও ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।