চান্দিনায় ঈদুল আযহা উপলক্ষে বরকরই ইউপিতে দুঃস্থদের মাঝে ত্রাণ ও মাস্ক বিতরণ

প্রকাশিত: ৫:০১ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০২০, 850 জন দেখেছেন

আলিফ মাহমুদ কায়সার

কুমিল্লা প্রতিনিধি ঃ

উন্নয়নের মহাসড়কে এগিয়ে চলছে দুর্বার, এখন সময় বাংলাদেশের মাথা উচু করে দাড়াবার এ
দেশব্যাপী মহামারী করোনা ভাইরাস মোকাবেলা সেই সাথে পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে, চান্দিনার সংসদ সদস্য অধ্যাপক আলী আশরাফ এর পরামর্শ ক্রমে ভি জি এফ, জি আর, ভিজিডি,শুকনো খাবার কর্মসূচীর আওতায় হতদরিদ্র ও দুঃস্থদের মাঝে ত্রাণ বিতরন করা হয়।
২৮ জুলাই মঙ্গলবার দিনব্যাপী বরকরই ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে উক্ত ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম মজুমদার শিপন এর তত্ত্বাবধানে পর্যায়ক্রমে সরকারিভাবে বরাদ্দকৃত ত্রাণ ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডে ভিজিএফ,ভিজিডি কর্মসূচীর আওতায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ অধিদপ্তর শাখার উদ্যোগে ৮শ ৩৫ জন গরীব, অসহায় ও দুঃস্থদের মাঝে ১০ কেজি করে ভিজিএফ এর চাল বিতরণ করা হয়েছে। একই সময় ১শ ২০ জনের মাঝে ভিজিডি কার্ডের আওতাভূক্ত গরীব অসহায়দের ৩০ কেজি করে চাল ও জিআর আওতাভুক্ত ১০০ জনের মাঝে ১০ কেজি করে চাল বিতরণ করা হয়।সেই সাথে ৫০ টি পরিবারের প্রত্যেককে ১০ কেজি করে চাল,১ কেজি ডাল, ৫ কেজি আলু বিতরণ করা হয়।এ ছাড়াও বয়স্ক,যুবক ও শিশুদের মাঝে ৫ হাজার মাস্ক বিতরণ করা হয়।
উক্ত ত্রাণ সামগ্রী বিতরনকালে উপস্থিত ছিলেন
বরকরই ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মো. শহিদুল্লাহ মজুমদার,চান্দিনা উপজেলা থেকে আগত ট্যাগ অফিসার আমার বাড়ী আমার খামার প্রকল্পের সমন্বয়ক আনোয়ারুল আজীম,,ইউপি সচিব কামাল হোসেন ভূইয়া, ইউপি আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক মো.আবদুস সাত্তার মেম্বার, মাওলানা নজির আহমেদ,যুবলীগ নেতা কিবরিয়া, রাজীব নন্দি, সোলাইমান, ইউপি আইন শৃঙ্খলা বাহিনী সহ সকল ইউপি মেম্বার ও অন্যান্য নেতৃবৃন্দ প্রমুখ।

বিতরনকালে উক্ত ইউপির চেয়ারম্যান সকলের উদ্দেশ্যে বলেন- চান্দিনার সংসদ সদস্য অধ্যাপক মোঃ আলী আশরাফ ও এফবিসিসিআই এর সিনিয়র সহ সভাপতি মোনতাকিম আশরাফ টিটুর পরামর্শে আমরা দ্রুত ত্রাণ সামগ্রী সবার ঘরে ঘরে পৌছে দেব। জনগনের মাঝে সরকার প্রতিনিয়ত ত্রান সামগ্রী পৌছে দিতে বদ্দ পরিকর।
করোনা ভাইরাসের কারণে মেম্বারদের মাধ্যমে প্রতিটি ওয়ার্ডের লোকজনদের ভাগ করে ভিজিএফ,ভিজিডি,জিআর কার্ডের চাল সুন্দর ও সুষ্ঠুভাবে বিতরণ করা হয়েছে।

সবাই মাস্ক ব্যবহারে সচেতন হবো, করোনা ভাইরাস সংক্রমণরোধে জনসমাগম এড়াতে সামাজিক দুরুত্ব বজায় রেখে চলা অত্যন্ত জরুরি বলে তিনি মনে করেন।