কুড়িগ্রামের রাজারহাটে টুং টাং শব্দে মুখরিত হয়ে উঠেছে কামারপল্লী

প্রকাশিত: ১২:৩১ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০২০, 653 জন দেখেছেন

মোস্তফা রাজারহাট (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি:

কুড়িগ্রামের রাজারহাটে টুং টাং শব্দে মুখরিত হয়ে উঠেছে বাজারের কামার পল্লীগুলো। দা, বটি ছুরি চাপাতি বানাতে দিন রাত হাড় ভাঙ্গা পরিশ্রম করছেন তারা। করোনা ভাইরাসের কারণে বেশ কয়েক মাস দোকান বন্ধ থাকায় প্রতিবছরের তুলনায় এবার তাদের ব্যবসা বেশ কিছুটা পিছিয়ে পড়েছে।
কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার ১নং ঘড়িয়াল ডাঙ্গা ইউনিয়নের কর্মকার পাড়া বাজার এলাকায় রয়েছে কর্মকারদের কামারশালা। সারা বছরই কামার পাড়ায় ব্যস্ততা থাকলেও কোরবানির ঈদ আসার আগে সেই ব্যস্ততা পায় ভিন্নমাত্রা। কেউ তৈরি করেছে দা, কেউ তৈরি করেছে চাপাতি আবার কেউ তৈরি করেছে ছুরি চাকু ইত্যাদি। আবার কেউ পুরাতন যন্ত্রপাতিতে ধার দিচ্ছেন। এছাড়া নতুন দা,বটি,ছুরি সারিবদ্ধ ভাবে দোকানের সামনে সাজিয়ে রেখেছেন বিক্রি করার জন্য।
কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে এখন দম ফেলার সময়টুক নেই কামারপাড়ায় । প্রতি পিচ বটির দাম ৩শ থেকে ৮শ , দা ৫০০ টাকা , ছুরি ৫০ টাকা থেকে ৫শ টাকা বিক্রি করেন তারা । কামারশালার কর্মকার বাবলু চন্দ্র (৩৮) জানান, করোনা ভাইরাসের প্রভাবে অন্য বছরের তুলনায় কাজের চাপ তেমন নেই । বছরের এ সময়ে আমাদের ভাল আয় হয় কিন্তু এবার তা নেই। এবার ব্যবসায় লোকসান গুনতে হবে বলে তিনি হতাশা প্রকাশ করেন।