মানবতার অনন্য অবদানের জন্য সন্মাননা পেলেন লিটন সরকার

প্রকাশিত: ৫:১৬ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০২০, 564 জন দেখেছেন

কুমিল্লা জেলা  প্রতিনিধিঃ-

মুক্তিযুদ্ধের অর্ধশত বছর পর সারাবিশ্বের মত বাংলাদেশও যখন অচেনা শত্রু করোনার সঙ্গে লড়ছে, সে লড়াইয়ের অগ্রভাগে মানবতার জন্য যুদ্ধ করে যাচ্ছেন সাবেক ছাত্রনেতা ও কুমিল্লা উত্তর জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা লিটন সরকার। করোনাকালে মানবতাবাদী, জনসেবামূলক নানা কর্মসূচির কারণে আজ তিনি দলের কাছে, রাষ্ট্রের কাছে সন্মানিত। বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ২৬ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে করোনা পরিস্থিতিতে বিশেষ ভূমিকার জন্য লিটন সরকারকে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

গতকাল সোমবার (২৭ জুলাই) আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আ. ফ. ম. বাহাউদ্দিন নাছিম ও বর্তমান সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহের হাত থেকে মানবতার সর্বোচ্চ সন্মাননা পুরস্কার গ্রহণ করেন কুমিল্লা উত্তর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা লিটন সরকার। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এ দিন বড় পর্দায় করোনাকালের একটি ডকুমেন্টারি দেখানো হয়, সেখানে কুমিল্লা উত্তর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের কার্যক্রমের ফুটেজগুলোও দেখানো হয়। পুরস্কার দেওয়ার প্রাক্কালে উপস্থাপক এবং সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান বাবু গর্ব করেই নামটি উচ্চারণ করে বলেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগকে আজকে যিনি তার কর্মে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন, যিনি ২৪ জন করোনায় আক্রান্ত মৃতদেহ দাফন সৎকার করে অনন্য নজির স্থাপন করেছেন তিনি লিটন সরকার।

আজীবন লালিত স্বপ্ন আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের কাছ থেকে এমন সম্মাননা পেয়ে লিটন সরকার আবেগাপ্লুত হয়ে বলেন, জীবনে কোনো কিছু চাওয়া পাওয়ার নেই। আজ যে সম্মননা আমার প্রানপ্রিয় সংগঠন আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ দিয়েছেন সে জন্য আমি চির কৃতজ্ঞ। তিনি বলেন, প্রতিটি স্বীকৃতি কিংবা পুরস্কার দায়বদ্ধতা এবং দায়িত্বশীল হতে সহায়তা করে, এই স্বীকৃতিও মানুষের জন্য কাজ করার, মানু‌ষের পাশে থাকার দায়িত্ব আরও বাড়িয়ে দিয়েছে বলে আমি বিশ্বাস করি । তিনি বলেন, আমি অত্যান্ত কৃতজ্ঞ সেই সাথে ধন্যবাদ জানাচ্ছি বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি,আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম,স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহ, সাধারণ সম্পাদক একেএম আফজালুর রহমান বাবু ভাই ,নাফিউল আলম নাফা, সালেহ মোহাম্মদ টুটুল,এড. মনির,তানভীর আকাতার সিফাত,জাহেদুল আলম জাহিদ ,আসাদুজ্জামান আসাদ সহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের।

সেই সাথে ধন্যবাদ জানাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে, যিনি মহান জাতীয় সংসদে দাড়িয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিটা কাজের প্রশংসা করেছেন। আমাদের আশার বাতিঘর মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সুস্বাস্থ্যের পাশাপাশি দীর্ঘায়ু কামনা করছি।একজন ক্ষুদ্র কর্মী হয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনার পাশে আজীবন আছি এবং থাকবো ইনশাল্লাহ।

উল্লেখ্য, লিটন সরকার মানবতার অনন্য নজির স্থাপন করেছেন করোনাকালের এই সময়ে করোনায় মৃত ব্যক্তিদের জানাজা দাফন সৎকার করে। তিনি মানবাতার সেবায় কাজ করতে গঠন করেন স্বেচ্ছাসেবকলীগ ১০১জন বিশিষ্ট টিম।হিন্দু, মুসলিম, দলমত নির্বিশেষে এই পর্যন্ত ২৪ জন করোনায় আক্রান্ত মৃত ব্যক্তির লাশ দাফন কাফন সৎকার করেন।তিনি করোনা মহামারিতে ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় মানুষের বাড়িবাড়ি গিয়ে নগদ অর্থ প্রদান,লকডাউনে ঘর বন্দি মানু‌ষকে ব্যক্তিগত তহবিল থেকে খাদ্যসামগ্রী ও ত্রাণ বিতরণ এবং তার মালিকানাধীন দোকানের ভাড়াটিয়াদের তিন মাসের দোকান ভাড়া প্রায় দুই লক্ষ টাকা মওকুফ করে রীতিমতো বেশ প্রশংসিত হয়েছেন।

আজ তিনি দলের কাছ থেকে স্বীকৃতি পেয়ে অত্যান্ত আনন্দিত। তিনি এই সম্মাননা কুমিল্লা উত্তর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ ১০১ টিমকে উৎসর্গ করেন।