মোংলা রাস্তার বেহালদশা ভোগান্তির শেষে নেই

প্রকাশিত: ১১:৩৬ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৪, ২০২০, 504 জন দেখেছেন

মোংলা(বাগেরহাট)প্রতিনিধিঃ

মোংলা টু খুলনা রুটে খানাখন্দে ভরা রাস্তার প্রায়(১১)কিলোমিটার অংশ জুড়ে। সারা বছরই মোংলা বন্দর থেকে দিগরাজ বাজার পর্যন্ত রাস্তার বেহাল দসায় জনজীবন থাকে অতিষ্ঠ।বন্দর এলাকা মোংলা অসংখ্য বানিজ্যিক কোম্পানি এলপিজি কোম্পানি,সিমেন্ট ফ্যাক্টরি। এছাড়া মোংলা বন্দরকে কেন্দ্র করে গরে উঠেছে অসংখ্য মিল কারখানা।এসকল কোম্পানির সকল মালামাল সরবরাহ কাছে ব্যবহার হয় এই সড়ক।প্রতি বছর বেশ কয়েকবার এর সংস্কার কাজ করা হলেও, কোন স্থায়ী সমাধান হয়নি।বর্ষা মৌসুমে রাস্তার ৮০% ক্ষতি গ্রস্থ্য হয়।এসময় রাস্তায় বড় ধরনের খানাখন্দকের সৃষ্টি হয় যার ফলে ঘটে অনাকাঙ্ক্ষিত সড়ক দুর্ঘটনা। মোংলা বাস স্ট্যান্ড থেকে গোনা ব্রিজ পর্যন্ত প্রায় ১১ কিলোমিটার রাস্তার বেহাল দসায় জনজীবন অতিষ্ঠ।কাদা আবৃত থাকা এই রাস্তাটি এখন বর্ষা মৌসুমে আরও ভয়াবহ আকার ধারণ করায় জনদুর্ভোগ বেড়েছে। অন্যদিকে দিগরাজ বাজার মাছ ও সবজি ক্রয়-বিক্রির জন্য বাজারজাত করতে এই রাস্তাটির ওপর নির্ভর করতে হয়।এছাড়া বন্দর এলাকায় অবস্থিত দুটি স্কুলে প্রতিদিন শত শত শিক্ষার্থীরা এই রাস্তা আসা যাওয়া করে থাকে।বর্তমানে বৃষ্টির দরুণ কাদামাটি ভয়াবহ আকার ধারণ করায় রাস্তাটি সম্পূর্ণ চলাচল অনুপোযোগী হয়ে পড়েছে।স্থানীয়রা জানান,জনদুর্ভোগ থেকে মুক্তি পেতে দীর্ঘদিন ধরে এই রাস্তাটি সাময়িক ভাবে সংস্কার করা হলেও তা কোন কাছে আসনি।কিন্তু জনগুরুত্বপূর্ণ এই রাস্তা সংস্কারের দাবি এখনো পর্যন্ত আলোর মুখ দেখেনি।শুধু দায়সারা আশ্বাসেই সীমাবদ্ধ রয়েছে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়,রাস্তা জুড়ে হাঁটু সমান কাদা থাকায় সাধারণ মানুষ চলাচল করতে পারছেন না। বিকল্প রাস্তা না থাকায় এই রাস্তা দিয়ে মানুষের চলাচল করা দুঃসাধ্য হয়ে পড়েছে। এর ফলে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়েছ। স্থানীয়রা ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছেন।এতে যে কোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা রয়েছে।