চান্দিনার জোয়াগে সাবেক ভিপি এডভোকেট আবু তাহের এর দাফনে কুমিল্লার বিবেক টিম

প্রকাশিত: ৬:৩৪ অপরাহ্ণ, জুন ২৮, ২০২০, 1845 জন দেখেছেন

আলিফ মাহমুদ কায়সার  কুমিল্লা প্রতিনিধিঃ-

এ যেন এক মানবতার প্রস্ফুটিত জলন্ত ইউসুফ মোল্লা টিপুর বিবেক টিম। ফোন পাওয়ার সাথে সাথে করোনা উপসর্গ তথা করোনা আক্রান্তে নিহত মৃতদেহের দাফনে দিন রাত মানবতার প্রতীক হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন কুমিল্লার বিবেক টিম। ঝড়বৃষ্টি,বৈশ্বিক আবহাওয়া উপেক্ষা করে রবিবারও নিজ দায়িত্বে ৩৬ তম করোনা উপসর্গে মৃত দেহের দাফন করলেন সেই টিম। এর পরিপ্রেক্ষিতে কুমিল্লার চান্দিনার জোয়াগ উত্তর ভূইয়া বাড়ী নিবাসী হাজী জয়নাল আবেদীনের সুযোগ্য বড় ছেলে কুমিল্লা আইনজীবি সমিতির বিজ্ঞ সদস্য এডভোকেট আবু তাহের ভিপি (৫৭) করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরন করেন।
পারিবারিক সুত্রে জানা যায় দীর্ঘদিন হার্ট ও কিডনী জনিত কারনে ঢাকা নিউ লাইফ হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে থাকা অবস্থায় তার শারিরিক অবস্থার অবনতি হলে রবিবার সকাল ৯ টায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।
লাশ হস্তান্তর শেষে বাড়ীতে নিয়ে এলে পারিবারিক ও সহকর্মীদের ফোন পেয়ে সুদূর কুমিল্লা থেকে দ্রুত ছুটে আসেন বিবেক মানবতার টিম। পরে বাদ আসর নিজ বাড়ি জোয়াগে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে মৃতের গোসল, কাফন ও জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করেন তাকে।
দাফন শেষে মৃতের চাচাতো ভাই শিক্ষক ফখরুল আলম রতন জানান – মানবিক দায়িত্ব পালনে আমরা অভিভূত। অনেকে আক্রান্তের ভয়ভীতির কারেন কাছে আসতে চায়ন।সেক্ষেত্রে বিবেক টিম সেই ভয়ভীতি উপেক্ষা করে দিনরাত পরিশ্রম করে এগিয়ে এসেছেন আল্লাহর কাছে তাদের সকলের দীর্ঘায়ু ও সফলতা কামনা করি।
তার মৃত্যুতে কুমিল্লা জেলা আইনজীবি সমিতির সভাপতি এডভোকেট আবদুল মমিন ফেরদৌস গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করেন।
এ ব্যাপারে বিবেকটিমকে ধন্যবাদ জানিয়ে নিহতের সান্নিধ্যে থাকা ঘনিষ্ঠ সহকর্মী ও শুভাকাঙ্ক্ষী কুমিল্লা বঙ্গবন্ধু যুব আইনজীবি পরিষদের সাধারন সম্পাদক এডভোকেট নুরুদ্দিন মিয়াজী বুলবুল বলেন আমরা একজন নিবেদিত প্রাণ বঙ্গবন্ধুর আদর্শ সৈনিককে হারালাম।তিনি ন্যায়পরায়ণ, নির্লোভ,আদর্শ আইনজীবি হিসেবে এক উজ্বল দৃষ্টান্ত ছিলেন।তার মৃত্যুতে তার স্ত্রী সন্তানাদির প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ সেই সাথে জেলা আইনজীবিরা সুখে দুখে পাশে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।
উল্লেখ্য যে, নিহত আবু তাহের ১৫ বছর যাবৎ কুমিল্লায় জর্জকোটে সফলতার সাথে কাজ করছেন।
সেই সাথে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবি পরিষদের নেতা, সাবেক জেলা ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি ও দোল্লাই নবাবপুর সরকারি কলেজের সাবেক ভিপি ছিলেন।
মৃত্যুকালে তিনি পরিবার পরিজন শুভাকাঙ্ক্ষী ও অনেক গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।