উখিয়ায় পাহাড় কাটতে বাধা দেওয়ায় হুমকি, অভিযোগ দায়ের

প্রকাশিত: ৩:৪৫ অপরাহ্ণ, জুন ২০, ২০২০, 750 জন দেখেছেন

উখিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি :কক্সবাজার উখিয়া রাজাপালং ইউনিয়নের তুতুরবিল এলাকায় সরকারী বনভুমিতে পাহাড় কেটে পরিবেশ বিপর্যয়ের অভিযোগ উঠেছে। তদন্ত পুর্বক বিহীত ব্যবস্থা নেওয়ার জোর দাবী এলাকাবাসীর।

অভিযোগ মতে, উখিয়া রাজাপালং ইউনিয়নের তুতুরবিল এলাকার ভুমিদস্যু গোরা মিয়ার পুত্র বাবুল মিয়া, আবুল আলা, আবু তাহের, মৃত ছৈয়দুর রহমানের পুত্র গোরা মিয়া, নাজিম উদ্দিন সেন্ডিকেট করে একই এলাকার আব্বাছ উদ্দিন বাবুলের ভোগ দখলীয় পাহাড় কেটে টেলা গাড়ী ও ডাম্পার যোগে পাহাড়ের মাটি বিভিন্ন স্থানে বিক্রি করে দিচ্ছে বলে জানা যায়।

অভিযোগে আরো জানা যায়, আব্বাছ উদ্দিন বাবুলের ভোগ দখলীয় পাহাড় না কাটতে আব্বাছ উদ্দিন বাবুল নিজে একাধিকবার ভুমিদস্যু সেন্ডিকেটদের বাধা দিলে প্রাণ নাশের হুমকি দেয় বলে অভিযোগে প্রকাশ।

গত ৮ জুন সকাল অনুমান ৭ ঘটিকার সময় আবারো উক্ত ভুমিদস্যু সেন্ডিকেট পাহাড় কেটে টেলা গাড়ী ও ডাম্পার যোগে মাটি পাচার কালে আব্বাছ উদ্দিন বাবুলের সাথে ভুমিদস্যু সেন্ডিকেটের মধ্যে অশালীন ভাষায় গালি গালাজ ও সংর্ঘষের সৃষ্টি হয়।

এই ব্যাপারে আব্বাছ উদ্দিন বাবুল নিজে বাদী হয়ে পরিবেশ অদিধপ্তর ও উখিয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে বলে জানান অভিযোগকারী।

সংঘটিত ঘটনার পাশ্ববর্তী লোকজন ফিরোজ মিয়া (৫৫), পিতা- মৃত রশিদ আহমদ, আব্দুস ছালাম (৫২), পিতা- নুর আহমদ, আনিসুল মোস্তফা (৪৫), পিতা- মৃত হাজী মোঃ ইয়াকুব, রশিদা বেগম (৩৫), স্বামী- বাচা মিয়া ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এইভাবে চলতে থাকলে এলাকায় বিরাট সংর্ঘষের আশংখা রয়েছে। পাহাড় কাটা বন্ধ করে পরিবেশ বিপর্যয়ের হাত থেকে প্রকৃতিকে বাচানোর জন্য জোর দাবী করেছে এলাকাবাসী।

এই ব্যাপারে পরিবেশ অধিদপ্তর জানান আমরা অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত পুর্বক ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। এ দিকে ভুমিদস্যুদের সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে আব্বাছ উদ্দিন ও তার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় আছে বলে জানান অভিযোগকারী নিজে।